প্রিয়তমা

বইয়ের নামঃ প্রিয়তমা

লেখকঃ সালাহউদ্দিন জাহাঙ্গীর
প্রকাশকঃ নবপ্রকাশ
মূল্যঃ ৫২০ টাকা
পৃষ্ঠা সংখ্যাঃ ৩৫০

সাফিয়্যা রাদিয়াল্লাহু আনহার বিয়ে হয়েছিল ইয়াহুদী গোত্রপতি আবুল আকিকের সাথে। খায়বার যুদ্ধ আসন্ন তাই পিতা তাড়াহুড়ো করেই এ বিয়ের আয়োজন করেন। বিয়ের রাতে অদ্ভুত একটা স্বপ্ন দেখেন সাফিয়্যা! উনি দেখেন আকাশের একটা উজ্জ্বল তারকা খসে পরছে, একসময় তা এসে উনার কোলে জায়গানিল। স্বপ্ন দেখে ঘুম থেকে জেগে উঠলেন, স্বামীর ঘুম ভাঙিয়ে খুলে বললেন স্বপ্নের কথা। স্বামী প্রবর রেগেই আগুন, কী! আমার ঘরে বসে আরবের রাণী হওয়ার স্বপ্ন দেখো! সজোরে থাপ্পড় কষলেন। সাফিয়্যার গালে কালশিটে দাগ পড়ে গেলো। এর অল্প দিন পরেই খায়বার বিজয় হয় মুসলমানদের হাতে। পিতা ও স্বামী হারিয়ে অনাথ হয়ে পরেন তিনি, বন্দি হয়ে আসেন মুসলমানদের হাতে। আল্লাহর রাসুল সা. তাকে সম্মানিত করেন উম্মাহাতুল মুমিনিনের মর্যাদা দিয়ে। স্বপ্ন পুড়ন হয় সাফিয়্যার। আরবের রাণীর সিংহাসনে অধিষ্ঠিত হোন। হোন রাসুলের প্রিয়তমায়। এমন অসংখ্য জানা অজানা প্রেমময় উপাখ্যান সন্নিবেশিত হয়েছে ‘ প্রিয়তমা’য়।

রাসুল সা. এর স্বভাবজাত অভিজাত্য, ব্যক্তিত্ব আর নবুয়ত, ৩৮ বছরের দাম্পত্য জীবনে ১১ জন স্ত্রীর সান্নিধ্য কাটিয়েছেন। প্রত্যেক উম্মাহাতুল মুমিনিন ছিলেন স্বাতন্ত্র্য বৈশিষ্ট্যমণ্ডিত। কেউ ছিলেন আল্লাহর রাসুলের থেকে বয়সে বেশ বড়, কেউ কাছাকাছি বয়সের আবার কেউ বেশ ছোট। কতক ছিলেন আরবের ধনী পরিবারের দুলালী আবার কতক ছিলেন দরিদ্র কুটিরের ফুল। নিজস্ব ভাষা সংস্কৃতির ছিলেন যেমন তেমনই ছিলেন সম্পূর্ণ ভিন্নভাষার, ভিন্ন সংস্কৃতির। এতো ভিন্নতা বৈরিতা নিয়ে আল্লাহর রাসুলের দাম্পত্যজীবন কেমন ছিল অন্য সবার মতো আমারো জিজ্ঞাসা ছিল অনেকদিনের। আম্মিজান খাদিজা আর আম্মিজান আয়েশা রা. সম্পর্কেই অল্প বিস্তর জানাশোনা অধিকাংশ মানুষের অথচ উনারা ছাড়া আরো ৯ জন আম্মি সম্পর্কে আমরা কতটাই জানি! প্রিয়তমা পাঠের আগে অনেক কিছুই জানতামনা তা নির্দ্বিধায় স্বীকার করছি।

উম্মাহাতুল মুমিনিনরা ছিলেন আল্লাহর রাসুলের প্রিয়তমা। আল্লাহর রাসুল দিনের দুই তৃতীয়াংশ সময় কোন না কোন স্ত্রীর ঘরে কাটাতেন। উনার জীবনের এই দীর্ঘ সময় আমাদের জন্য অজানাই ছিল প্রায়! যা ছিল তাও ছড়ানো ছিটানো ফলে দীর্ঘ পাঠের মাধ্যমেই সে সময়গুলো সম্পর্কে আমরা অবগত হতে পারতাম ফলে অধিকাংশের এই অংশটা সম্পর্কে আবছা আবছা ধারণাতেই সীমাবদ্ধ থেকে যেতো। লেখক সালাহউদ্দিন জাহাঙ্গীর দীর্ঘ পরিশ্রম ও সাধনা করে আমাদের জন্য উপহার দিয়েছেন ‘প্রিয়তমা’। আল্লাহর রাসুলের প্রিয়তমাদের এক মলাটের ভেতরে সন্নিবেশিত করেছেন। ইতিহাস ঘেটে ঘেটে কষ্টিপাথরে যাচাই বাছাই করে অলংকৃত করেছেন রাসুলের প্রিয়তমাদের।

যুক্তরাষ্ট্র কোনো সভ্য রাষ্ট্র নয়: এরদোগান

October 21, 2017

নোবেল বিজয়ী ইশিগুরোর লেখালেখি

October 21, 2017

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *