গোপন রহস্য জানিয়ে দিলেন এফবিআই গুপ্তচর

অনেক দিন ধরেই তিনি মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা এফবিআইয়ের হয়ে গুপ্তচরবৃত্তির কাজ করছিলেন। নানা সময় নানা পরিচয়ে তিনি সন্ত্রাসী সংগঠনগুলোর ভেতরে ঢুকে গোপন তথ্য সংগ্রহ করেছেন। আড়ালে থেকেই ফাঁস করে দিয়েছেন সন্ত্রাসীদের বহু পরিকল্পনার কথা। সম্প্রতি সেই এফবিআই সদস্য নিজের জীবনের নানা রোমহর্ষক ঘটনা নিয়ে বই প্রকাশ করেছেন।

বইতে নিজের পরিচয় দিয়েছেন তামের আল নুরি হিসেবে। যদিও ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা বিবিসি বলছে, এটা যে তার সত্যিকারের পরিচয় তা ভাবার কোনো কারণ নেই। কেননা, গুপ্তচরবৃত্তির সুবিধার্থে এমন বহু নাম তিনি ব্যবহার করেন।

প্রায় ৪ বছর আগে নিউইয়র্কের টরেন্টো ট্রেনের সন্ত্রাসী হামলার পরিকল্পনাও তিনি ফাঁস করে দিয়েছিলেন। এজন্যে তাকে সন্ত্রাসী সংগঠনটির বিশ্বাস অর্জন করে তাদেরই একজন একনিষ্ঠ সদস্য হিসেবে কাজ করতে হয়। আসল পরিচয় প্রকাশ পেতে পরিণতি কি হতো তা বলে দেয়ার প্রয়োজন নেই।

সন্ত্রাসীদের মানসিকতা সম্পর্কে বলতে গিয়ে তামের আল নুরি জানান, ‘জিহাদিদের ব্যাপার হচ্ছে তারা মিথ্যে সত্যের পেছনে ছুটে নিজেদের জীবনই বিপন্ন করে। তারা পূণ্য লাভের আশায় শয়তানের লক্ষ্য বাস্তবায়ন করে।’

নিজের সম্পর্কে বলতে গিয়ে আল নুরি জানান, ‘আমি শুরু মার্কিন নাগরিকই নই, আমি মুসলিম। মানুষরূপী পশুরা আমার দেশে কি করতে চলেছে তা জানিয়ে দেয়া আমার কর্তব্য।’বাবার হাত ধরে মিসর থেকে অভিবাসী হয়ে আসা আল নুরি নিউ জার্সিতে পুলিশ বাহিনীতে যোগ দিয়েছিলেন। সেসময় তিনি মাদক চোরাচালানের চক্র ভেঙ্গে দেয়ার দায়িত্ব পালন করেন।

কাজের সাফল্যের সুবাদেই পরে তাকে গোয়েন্দা সংস্থা এফবিআই’তে পাঠানো হয়। তার আরবী জানার দক্ষতা সেক্ষেত্রে বাড়তি যোগ্যতা হিসেবে দেখা হয়। আর সেকারণেই তিনি দায়িত্ব পান পরিচয় গোপন করে সন্ত্রাসীদের সঙ্গে সখ্য গড়ে তোলার।ছদ্মবেশে থাকার কারণে তার নিউইয়র্কের টরেন্টো রেল পথে বহু মানুষকে মেরে ফেলার সন্ত্রাসী পরিকল্পনা তিনি নস্যাৎ করে দেন।

যদিও এই হামলার মূল আসামী তিউনিশিয়া থেকে অভিবাসী হয়ে আসা শিহাব এসেগাহের দাবি করেছিলেন, তাকে স্ট্রিং অপারেশনের মাধ্যমে ফাঁসানো হয়েছে।কিন্তু আসল সত্য হচ্ছে, হামলার জন্য ইঞ্জিনিয়ার প্রয়োজন হওয়ায় শিহাব পরিকল্পনা খুলে বলেছিলেন নুরিকে।

জীবনের ঝুঁকি নিয়ে দেশের কল্যাণে কাজের উদ্দেশ্য প্রসঙ্গে নুরি বলেন, সত্যকে জানতেই তার এই বিপদজনক জীবন। গোটা বিশ্বে সন্ত্রাসবাদ যেভাবে মাথা উঁচিয়ে দাঁড়াচ্ছে তার রাশ না টানলে শান্তিপূর্ণভাবে বসবাস করাই তো মুশকিল হয়ে যাবে।

বিডিটুডে

বাসে শিক্ষার্থীদের বিড়ম্বনা আর নয়, হাফ ভাড়া না নিলেই ব্যবস্থা

October 23, 2017

পৃথিবীর সবচাইতে বড় পরিবার

October 23, 2017

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *