যুক্তরাষ্ট্রে ‘দাদিদের’ সুন্দরী প্রতিযোগিতা

সুন্দরী প্রতিযোগিতার কথা শুনলেই একদল সুন্দরী তরুণীর ছবিই মনের মধ্যে ভেসে ওঠে। কিন্তু যুক্তরাষ্ট্রের আটলান্টিক সিটিতে গত বৃহস্পতিবার হয়ে গেল এক ভিন্নধর্মী সুন্দরী প্রতিযোগিতা। এ সুন্দরী প্রতিযোগিতাটি ছিল নানি-দাদিদের বয়সীদের নিয়ে। রীতিমতো জমকালো পোশাকে সুসজ্জিত হয়ে নানি-দাদিরা অংশ নেন মিস সিনিয়র আমেরিকা ২০১৭-তে।

যে বয়সটাকে প্রথাগতভাবে মনে হয় অসুখ-বিসুখে বিছানায় পড়ে থাকা কিংবা হুইল চেয়ারে চলাফেরার, সেই বয়সকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে তারা তাদের সৌন্দর্য ও ব্যক্তিত্বের ঝলক দেখালেন। এ খবর দিয়েছে এএফপি ।

এ বছরের মিস সিনিয়র আমেরিকার খেতাব জিতে নেন ৭৩ বছর বয়স্ক নিউ জার্সির ক্যারোলিন স্লেড হার্ডেন। উচ্ছ্বসিত হার্ডেন বলেন, এ বয়স হচ্ছে মার্জিত সৌন্দর্যের। এটি কেবল শুরু, শেষ না। দুই সন্তানের এ জননীর তিনজন পৌত্র ও একজন প্রপৌত্র রয়েছে। তিনি বলেন, সৌন্দর্য প্রদর্শনী বলতে লোকে মনে করে শারীরিক সৌন্দর্য। তবে এটি আসলে ‘ভেতর থেকে আসা সৌন্দর্য’।

প্রতিদিন সকালে নিয়ম করে শরীরচর্চা করেন। সৌন্দর্যের রহস্য সম্পর্কে হার্ডেন বলেন, ৭০ বছর বয়েসেও কি করে সুন্দর থাকা যায় এর কোনো জাদুকরি উত্তর নেই। তিনি বলেন, ‘খোদার কাছে প্রার্থনা করুন আর স্বাস্থ্যকর খাবার খান।’ তিনি বলেন, ‘লোকে বলে, আমি দেখতে সিনড্রেলার মতো। তবে কখনই মনে হয় না, আমি ততটা সুন্দর।’ মিস সিনিয়র আমেরিকা প্রতিযোগিতায় ৯০ ছাড়ানো কিছু নারীও অংশ নেন।

এ প্রতিযোগীদের অনেকেই ক্যান্সার, তালাক প্রাপ্ত ও বৈধব্যের মতো যন্ত্রণার মধ্য দিয়েও গেছেন। প্রতিযোগিতার দিন তারা নানা ধরনের নাচ-গান আর হাঁটাচলার প্রদর্শনী দেখিয়ে প্রমাণ করেন এগুলো করার জন্য বেশি বয়স কোনো ব্যাপার নয়।-ইটিভি

পৃথিবীর সবচাইতে বড় পরিবার

October 23, 2017

উচ্চ ব্যয়ের ঢাকায় নিম্নমানের জীবন

October 23, 2017

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *