মুক্তিযোদ্ধারা কিছু পাওয়ার জন্য যুদ্ধ করেননি

গাইবান্ধা:জাতীয় সংসদের ডেপুটি স্পিকার অ্যাডভোকেট ফজলে রাব্বী মিয়া বলেছেন, মুক্তিযোদ্ধারা কিছু পাওয়ার জন্য যুদ্ধ করেননি। বাংলাদেশের স্বাধীনতার জন্য তারা মুক্তিযুদ্ধ করেছেন। তাদের অবদান জাতি চিরদিন শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করবে।

মঙ্গলবার (২৪ অক্টোবর) বিকেলে গাইবান্ধার সাঘাটা উপজেলায় শহীদ মুক্তিযোদ্ধাদের স্মরণে আয়োজিত স্মরণ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

স্পিকার আরও বলেন, পশ্চিমা শাসক গোষ্ঠী এ দেশকে একটি তাবেদারি রাষ্ট্রে পরিণত করে বাঙালি জাতির ওপর নানা নির্যাতন চালায়। এসময় জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এ নিয়ে প্রতিবাদ সংগ্রাম করলেও পশ্চিমা শাসক গোষ্ঠীর টনক নড়েনি। ১৯৭০ এর নির্বাচনে আওয়ামী লীগ সংখ্যা গরিষ্ঠ আসনে জয়লাভ করলেও বঙ্গবন্ধুর কাছে ক্ষমতা হস্তান্তর করতে নানা তালবাহানা করতে থাকেন ইয়াহিয়া-ভুট্টো। ফলে বাধ্য হয়ে বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশকে স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করার ঘোষণা দেন। তার ডাকে সাড়া দিয়ে ১৯৭১ সালে দেশের দামাল ছেলেরা জীবন বাজি রেখে স্বাধীনতা যুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়েন। নয় মাসের সশস্ত্র সংগ্রামের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ নামের স্বাধীন রাষ্ট্রের জন্ম হয়।

সাঘাটা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) উজ্জ্বল কুমার ঘোষের সভাপতিত্বে এ সভায় আরও বক্তব্য রাখেন-গাইবান্ধা জেলা প্রশাসক গৌতম চন্দ্র পাল, সাঘাটা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট এ এইচ এম গোলাম শহীদ রঞ্জু, মুক্তিযুদ্ধকালীন কমান্ডার ও সাবেক জেলা ডেপুটি ইউনিট কমান্ডার এবং ২৪ অক্টোবর উদযাপন কমিটির আহ্বায়ক মো. সামছুল আলম, জেলার সাবেক ইউনিট কমান্ডার মুবিনুল হক জুয়েল, মাহমুদুল হক শাহজাদা, নাজমুল আরেফিন তারেক, মুক্তিযোদ্ধা গৌতম চন্দ্র মোদক, সাঘাটা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোস্তাফিজুর রহমান, যুদ্ধকালীন কমান্ডার নাজিম উদ্দিন মণ্ডল, আব্দুল জলিল তোতা, আবু বক্কর সিদ্দিক, আফতাব হোসেন দুদু, রফিকুল ইসলাম বকুল, মকফুর রহমান, আব্দুল মান্নান মণ্ডল, লাল মিয়া, মোহাব্বত আলী, আজাহার আলী প্রমুখ।

উল্লেখ্য, ২৪ অক্টোবর মুক্তিযুদ্ধ চলাকালে সাঘাটা উপজেলার ত্রিমোহনী ঘাটে পাকিস্তানী হানাদারদের সঙ্গে মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মুখ যুদ্ধ হয়। তাতে শহীদ হন ১২ জন বীর মুক্তিযোদ্ধা।

এসআই

মাদরাসা ছাত্রদের ব্যবসা শেখাবেন ইভানকা!

October 24, 2017

বর্মি সেনাদের পৈশাচিকতা : একটি ভয়াবহ ভাষ্য

October 24, 2017

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *