গাজীপুরে আ’লীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষে আহত ১২

গাজীপুরে জেলা আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির সভা চলাকালে কার্যালয়ের বাইরে অপেক্ষমাণ দলের দুই গ্রুপের কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে গতকাল সন্ধ্যায় সংঘর্ষ ও ধাওয়া-পাল্টাধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। এ সময় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ লাঠিচার্জ করেছে। এতে উভয় পক্ষের অন্তত ১২ জন আহত হয়েছে।

আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা জানান, গাজীপুর জেলা শহরের রাজবাড়ি সড়কের পাশে জেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয়ের শনিবার বিকেলে জেলা আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির সভা চলছিল। সভায় জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও মুক্তিযুদ্ধবিষয়কমন্ত্রী অ্যাডভোকেট আ ক ম মোজাম্মেল হক, অ্যাডভোকেট রহমত আলী এমপি, সিমিন হোসেন রিমি এমপি, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন সবুজ এবং যুগ্ম সম্পাদক ও অ্যাডভোকেট রহমত আলী এমপির ছেলে জামিল হাসান দুর্জয়সহ কমিটির নেতৃবৃন্দ অংশ নেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, জেলা আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির সভাকে কেন্দ্র করে দুপুরের পর থেকে বিভিন্ন উপজেলা থেকে দলের নেতাকর্মী ও সমর্থকরা মিছিলসহকারে দলীয় কার্যালয়ের সামনে জড়ো হতে থাকেন। সভা শুরুর পর বিপুল কর্মী-সমর্থক নিয়ে জামিল হাসান দুর্জয় সভাস্থলে আসেন। দুর্জয় সভাস্থলে প্রবেশের সময় প্রতিপক্ষ ইকবাল হোসেন সবুজ সমর্থক কর্মীরা সভা কক্ষের সামনে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করে। এতে উভয় পক্ষের নেতাকর্মীদের মধ্যে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। এ সময় সভাস্থলের বাইরে হট্টগোল ও দুই পক্ষের কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়।

একপর্যায়ে দু’পক্ষের কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে হাতাহাতি ও ধাওয়া-পাল্টাধাওয়া শুরু হয়। এ ঘটনায় এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। এতে উভয় পক্ষের অন্তত ১২ নেতাকর্মী আহত হয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এলে ফের জেলা আওয়ামী লীগের কার্যকরী কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়।

গাজীপুর সদর উপজেলার সাবেক ভাওয়াল মির্জাপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো: সফিকুল ইসলাম জানান, জেলা কমিটিতে দলীয় অবস্থান ও কর্মকাণ্ড নিয়ে গাজীপুর-৩ আসনের সংসদ সদস্য রহমত আলীর ছেলে জামিল হোসেন দুর্জয়ের সাথে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন সবুজের দ্বন্দ্ব চলে আসছিল।

সম্প্রতি জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য মোশাররফ হোসেন দুলালকে গাজীপুর সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও বাড়িয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি মো: হাবিবুর রহমান হাবিবকে সাধারণ সম্পাদক হিসেবে নাম ঘোষণা করেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন সবুজ। ওই কমিটি বাতিলের দাবি জানিয়ে ক’দিন ধরে দুর্জয় গ্রুপের নেতাকর্মীরা সংবাদ সম্মেলন ও বিােভ করে আসছিল।

যথাসময়ে দুই কোটি বই ছাপা অনিশ্চিত

October 29, 2017

মানবতার ডাকে আফ্রিদির পাশে হরভজন

October 29, 2017

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *