ইয়েমেনে পরিস্থিতি ভয়াবহ

যুদ্ধবিধ্বস্ত ইয়েমেনে ভয়ানক মানবিক বিপর্যয় ঘটেছে বলে শনিবার ইউএন এইড প্রধান মার্ক লাওকক সতর্ক করেছেন। সেই সঙ্গে তিনি লড়াইরত পক্ষগুলোকে আন্তর্জাতিক আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন।

আরব জাতিকে নিঃশেষ করে দেওয়া এই লড়াই আলোচনার মাধ্যমে শেষ হওয়া উচিত বলে জানিয়েছেন জাতিসংঘের মানবিক কার্যক্রম ও জরুরি ত্রাণের প্রধান।

পাঁচ দিনের ইয়েমেন সফরের শেষ দিনে লাওকক বলেছেন, ‘মানবিক বিপর্যয়, মহামারি আকারে দ্রুত ছড়িয়ে পড়া কলেরা, খাদ্য নিরাপত্তাহীনতা এবং নাগরিকদের ঘরবাড়িছাড়া হওয়ার বিষয়টি দেখতে এসেছিলাম। মানুষের তৈরি এই সংঘর্ষের কারণে যে ভয়াবহ ধরনের বিপর্যয় দেখা দিয়েছে তা দেখে আমি হতাশ। জাতিসংঘ লড়াইয়ে জড়িত পক্ষগুলোকে আন্তর্জাতিক আইনের প্রতি সর্বোচ্চ শ্রদ্ধাবান হওয়ার আহ্বান জানাচ্ছে। সেই সঙ্গে আটক নাগরিক এবং সাংবাদিকদের প্রতি সর্বোচ্চ সম্মান দেখাতে আহ্বান জানাচ্ছে। ’

লাওককের আজ রিয়াদে ইয়েমেনে মানবিক বিপর্যয় নিয়ে আলোচনা করার কথা রয়েছে। ইয়েমেন সফরে আন্তর্জাতিক স্বীকৃত সরকারের কেন্দ্রস্থল এডেন, বিদ্রোহী নিয়ন্ত্রিত এলাকা সানাসহ আরো কয়েকটি এলাকা তিনি সফর করেছেন। তিনি এডেন ও সানার কর্মকর্তাদের মানবিক সহায়তা পৌঁছানোর জন্য সব ধরনের সহযোগিতার আহ্বান জানিয়েছেন। সেই সঙ্গে বাণিজ্যিক ও মানবিক কাজে ব্যবহারের জন্য সানা বিমানবন্দর চালু করে দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন।

লাওকক বলেছেন, তিনি বেশ কিছু পুষ্টিহীন শিশুকে দেখেছেন। বিদ্যুৎ ও পানি সুবিধাহীন কিছু হাসপাতাল পরিদর্শন করেছেন। এসব হাসপাতালে কর্মরতরা কয়েক মাস ধরে বেতন পাচ্ছেন না।

জাতিসংঘ ইয়েমেনে ৭০ লাখ নাগরিককে সরাসরি সহায়তা দিচ্ছে। কিন্তু এই কর্মসূচি অব্যাহত রাখার জন্য আরো সমর্থন প্রয়োজন।

ইয়েমেনের সাবেক প্রেসিডেন্ট আলী আব্দুল্লাহ সালেহের সমর্থক গোষ্ঠী এবং বতর্মান প্রেসিডেন্ট মনসুর হাদির অনুগত বাহিনীর মধ্যে ২০১৪ সাল থেকে লড়াই চলছে। সাবেক প্রেসিডেন্টকে ইরান সমর্থিত হুথি মিলিশিয়ারা সমর্থন দিচ্ছে। অন্যদিকে ২০১৫ সালের মার্চ থেকে হাদি সরকারের সমর্থনে সৌদি আরব নেতৃত্বাধীন জোট ইয়েমেনে হস্তক্ষেপ শুরু করে। এই সংঘর্ষে এরই মধ্যে সাড়ে আট হাজারের বেশি প্রাণহানির ঘটনা ঘটেছে। আহত হয়েছে ৫৮ হাজার ৬০০। তাদের বেশির ভাগই বেসামরিক নাগরিক। জাতিসংঘ এই দেশটিকে বিশ্বের মধ্যে সবচেয়ে মানবিক বিপর্যস্ত দেশ বলে চিহ্নিত করেছে।

সূত্র : এএফপি।

ভারতের অবিশ্বাস্য এবং অতিরহস্যজনক পাঁচ স্থান

October 29, 2017

কে বড়-কে ছোট দ্বন্ধে স্কুল ছাত্র খুন

October 29, 2017

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *