রামাদান আল্লাহ’র সাথে সম্পর্ক করুন

লেখক ড. মুহাম্মদ ইবনে আবদুর রহমান আরিফী

প্রকাশক হুদহুদ প্রকাশন

আইএসবিএন 987984891124

পৃষ্ঠা সংখ্যা ৯৬

মুদ্রিত মুল্য ৳ ২০০.০০

ছাড়ে মুল্য ৳ ১৩০.০০(-35% Off)

রেটিং

ক্যাটাগরি ইসলামি বই , রোযা/সিয়াম

দুনিয়াতে আল্লাহ সবকিছু একটা করে মৌসুম দিয়েছেন। মৌসুমে সেই জিনিস পর্যাপ্ত পরিমাণে পাওয়া যায়। এবাদত-বন্দেগীর ক্ষেত্রেও তিনি মুসলমানকে একটি মৌসুম দিয়েছেন। তা হ্ল রামাদান মাস। এই মাসে এবাদত-বন্দেগীর বড় কদর রেয়েছে। নফলের মূল্যও হয়ে যায় ফরযের সমান।

ফরযের মূল্য বৃদ্ধি পায় সত্তর গুণ। এই মাসেই আছে লাইলাতুল কদর, যার মূল্য হাজার মাসের চেয়েও বেশি। এই মাসেই নাযিল করা হয়েছে কুরআনে কারীম। এই একটি মাসের নামই কুরআন মাজীদে উল্লেখ করা হয়েছে।

কিন্তু আজ মুসলিম সমাজ গাফলতে নিমজ্জিত। রামাদানকে অনেক গুনাহের মৌসুম বানিয়ে ফেলে। অনেক ক্ষেত্রে গুনাহের প্রতিযোগিতা হয়। এই প্রতিযোগিতার ক্ষেত্রে এখন যোগ হয়েছে অনেক নতুন গুনাহ।

সৌদিআরবের বেশিরভাগ মানুষ আল্লমা ইবনে তাইমিয়াকে খুব ভালোবাসেন। তাঁর ফতোয়াসমূহকে শির্ষে রাখতে পছন্দ করেন। আর ইবনে তাইমিয়া ছিলেন ইমাম আহমাদ ইবনে হাম্বল-র অনুসারী। এজন্য আরিফীসহ সৌদী আরবের বেশিরভাগ আলেমের ফতোয়া হাম্বলী মাযহাবের সাথে বেশি সঙ্গতিপূর্ণ। তবে তাঁদের মধ্যে একটি বিষয় লক্ষ্য করা যায়। তাঁরা মাসআলা-মাসায়েলের ক্ষেত্রে সমস্ত ইমামের অভিমতের প্রতি শ্রদ্ধা রেখে বর্ণনা করেন। তবে প্রশাখাগত মাসায়েল হাম্বলী মাযহাবের বুনিয়াদের উপর বয়ান করেন। এজন্য এই পুস্তিকার ক্ষুদ্রাতিক্ষুদ্র কিছু মাসআলা আমাদের দেশে অধিক প্রচালিত মাসআলা থেকে ব্যতিক্রম বলে মনে হতে পারে। এমন ক্ষেত্রে খটকা হলে আলেমদের সাথে যোগাযোগ করাটা হবে বুদ্ধিমত্তার কাজ।

আপনি লগড ইন নাই, দয়া করে লগ ইন করুন

এই বিষয়ে অন্যান্য বই