হাসপাতালে ডাক্তার ও রোগীর পাশে

লেখক ড. মুহাম্মদ ইবনে আবদুর রহমান আরিফী

প্রকাশক হুদহুদ প্রকাশন

আইএসবিএন 9789849001141

পৃষ্ঠা সংখ্যা ১২৮

মুদ্রিত মুল্য ৳ ২৪০.০০

ছাড়ে মুল্য ৳ ১৫৬.০০(-35% Off)

রেটিং

ক্যাটাগরি ইসলামি বই , ইসলামি বিবিধ বই

বর্তমান যুগে সবারই কমবেশি হাসপাতালে যেতে হয়-হয়তো নিজের জন্য, অথবা অন্যের জন্য। যার জন্যই হোক না কেন, হাসপাতালে যাওয়া এবং অবস্থান করার ব্যাপারে শরীয়তের কিছু স্পষ্ট দিকনির্দেশনা আছে। বেশীর ভাগ মুসলমান সে বিষয়ে গাফেল বলা চলে। তাই অত্যন্ত নাজুক পরিবেশে গিয়েও আমরা অনেক অন্যায় কাজে লিপ্ত হই। এই বইটিতে পাঠকপ্রিয় আলেম এবং বক্তা আব্দুর রহমান আরিফীহাস্পাতালের ডাক্তার, রোগী ও অন্যান্য লোকদের করণিয়-বর্জনীয় সম্পর্কে বিশদ ব্যখ্যা দিয়েছেন, যে বিষয়ে আলোচনা খুব জরুরী এবং সময়ের দাবী ছিল।
#একজন আদর্শ চিকিৎসকের করণীয় #
----------------------------------------
* চিকিৎসকের জন্য রোগীর সাথে নরম ভাষায় কথা বলা। রোগীর মনোরঞ্জনের জন্য তার পরিবার সম্পর্কে যোগজিজ্ঞাসা করা।
* রোগীর সাথিসঙ্গীর সাথে উত্তম আচরণ করতে হবে।তার বার বার প্রশ্ন শুনেও বিরক্ত হওয়া যাবেনা।
* হাসপাতালের ওয়ার্ডে নিয়মিত রাউন্ড দেওয়ার সময় রোগী দেখার নিয়ত করা চাই। এতে রোগী দেখার সওয়াব ও প্রতিদান পাওয়া যাবে।
* রোগী দেখে মুচকি হাসা বাঞ্ছনীয়। এরকম মুচকি হাসিও সাদাকা।
* রোগীর কোন জটিল সমস্যা থাকলে কোমলতার সাথে দিকনির্দেশনা দিতে হবে।রোগীর কোন দরকার থাকলে সেটা পূরণ করারর জন্য আপ্রাণ চেষ্টা করতে হবে।
* রাতে ডিউটি করার সময়ও আল্লাহর কাছে প্রতিদান পাওয়ার আশা রাখতে হবে।
* রোগ নির্ণয় ও ওষুধ নির্বাচনের ক্ষেত্রে তাড়াহুড়া করা উচিত নয়; বরং ধৈর্যের সাথেরোগীর অবস্থা উপলব্ধি করতে হবে।
* মুসলমানদের দোষত্রুটি লুকানো উচিত।
* রোগীর সাথে বেশি কথা উচিত নয়। এতে তার পরে অপেক্ষমান অন্য রোগীরসময় নষ্ট হয়। 
 

আপনি লগড ইন নাই, দয়া করে লগ ইন করুন

এই বিষয়ে অন্যান্য বই