রঙিন মখমল দিন (শৈশবের আত্মজীবন)

লেখক শরীফ মুহাম্মদ

প্রকাশক নবপ্রকাশ

আইএসবিএন 9789849265535

পৃষ্ঠা সংখ্যা ১৪৩

মুদ্রিত মুল্য ৳ ২৩০.০০

ছাড়ে মুল্য ৳ ১৩৮.০০(-40% Off)

রেটিং

ক্যাটাগরি জীবনী ও স্মৃতিচারণ: বিবিধ

পৃথিবীতে কেউ-ই বৃদ্ধ হয়ে জন্মেনা। জন্মে ছোট্ট মোলায়েম দেহে। কোমল শিশু হয়ে। শৈশব, কৈশোর, যৌবন পেরিয়েই পৌঁছাতে হয় বার্ধক্যে। শিশুরা চিরকাল শিশু নয়। বৃদ্ধও তাই। শুরুতেই কেউ বৃদ্ধ নয়।

শিশু। তার আছে একটি শৈশব। শৈশব বড্ড মধুর সময়। অজানাতে ছুটে চলা। অকারণে মন বিষণ্ণ হওয়া। এদিকওদিক ঘোরাফেরা। না বুঝে ভুল করা। শুধু সুযোগ খোঁজতে থাকা। ফাঁকি দিয়ে বেরিয়ে যাওয়া। যাচ্ছেতাই বায়না ধরা। রকমারি কাণ্ড করা। কৌতূহলী মন। থাকতে চায় বাইরে সারাক্ষণ। বিচিত্র মিতালী। অভিমান ক্ষণস্থায়ী। এই ঝগড়া। এই মিলে যাওয়া। পবিত্র মন। পরিচ্ছন্ন মনন। অনিন্দ্য শৈশব। মন চায়। ফিরে যাই। বারবার। শৈশবের সেই রঙিন মখমল দিনে।

লেখক, ৪৬ বছর বয়স। সময়ের বাহনে পাড়ি দিয়ে মুখ দেখতে চেয়েছেন শৈশবের। যৌবন পেরোনো ৪৬ বছর বয়সী শরীর, কথা বলছেন রেখে আসা শৈশবের অশরীরী সত্তার সাথে। অতীতগহ্বর থেকে স্মৃতি কুড়িয়ে এনে তিনি মালা গেঁথেছেন। স্মৃতিদের সেই প্রোথিত মালা আমাদের গলায় পরিয়ে দিয়েছেন।

হাঁসি-কান্না। আনন্দ-বেদনা। প্রেম-বিরহের গল্প। মন কেমন করা শৈশবের রংবেরং গপ্প। মায়ার শহরে বেড় উঠার বিবরণ। যাপিত শৈশবের টুকরো বর্ণনা। সব বলে গেছেন ঘোরলাগা গদ্যে। এ যেন হারানো শৈশব। অলিখিত আত্মজীবন(আমার)। কিছুটা আমারও।

ছোটবেলা। ছোট গল্প। ছোট শব্দ। ছোট বাক্য। সব ছোট। তবে তিনি বড়। বরেণ্য। বরেণ্যদের স্মৃতিচারণ কিংবা আত্মজীবন-পাঠে পুলক অনুভূত হয়। উক্ত বই মে১৮ তে পড়া হয়। যখন পড়ি, নাই হওয়া শৈশবের আবছা সব স্মৃতি জেগে ওঠলো। বয়ে গেলো হৃদয়জুড়ে স্মৃতিদের ঝড়োহাওয়া। প্রবলবেগে।

তিনি যখন লিখছেন,
১।"সব বদলে গেছে। মনের ছবিগুলোই কেবল বদলাতে পারি না। কী অপরূপ রঙে আঁকা শৈশবের ছবির খাতা! একা একা পাতা উল্টে যাই।"
২।"আম্মার আশ্রয়-আদরে আমার মনটা বেঁচে গেছে। আর আব্বার শাসনে, চোখ রাঙানিতে রক্ষা পেয়েছে জীবন।"
৩।"আম্মা! এখনো আমার পরান পোড়ে। আপনার কথা মনে হলে এখনো শিশুবেলার মতোই কাঁদতে থাকি। সে কান্না থামতে চায় না। এখন কাঁদতে কাঁদতেই প্রাণটাকে একটু ঠান্ডা করার চেষ্টা করি।"
তাঁর হৃদয়টা তখন কেঁপেছিল! প্রাণটা তখন কেঁদেছিল! চোখ থেকে কি তখন অশ্রু ঝরেছিল! খাতা কি অশ্রুতে ভিজেছিল! হয়তো বা!

লেখকের চোখ থেকে ঝরে পড়া অশ্রু। হৃদয়ের গভীর হতে উৎসারিত কলমের কালি। আল্লাহ কবুল করুন। লেখকের মতো উৎসাহ-প্রেরণা-উদ্দীপনা। আল্লাহ আমাদেরও দান করুন। ভুলে পূর্ণ আমাদের জীবন-খাতা। আল্লাহ গুণে পূর্ণ করেদিন।

আপনি লগড ইন নাই, দয়া করে লগ ইন করুন

এই বিষয়ে অন্যান্য বই